মৌহূর্তিক উদ্ভাস তথা আণবিকতায় প্রখর সুব্রত ভৌমিকের অণুগল্পের সম্ভার

বিপ্লব বিশ্বাস ‘শিল্পকর্মের বিচারে ছোটোগল্প পলকাটা হীরের মতো সংহতি ঘনত্বে নিরেট তথা বাহুল্যহীনতার জন্য নিখাদ। অসহ্য ও অস্বচ্ছ তার স্বচ্ছতা, […]

আহমদ বশীরের মুদ্রারাক্ষস পাঠের পর

আসিফ উদ্দীন রেজভী বইয়ের ‘রিভিউ’ নামের একটাকিছু লেখার প্রথা বাংলাদেশে মুটামুটি তৈরি হয়েছে। আমি নিজে যেহেতু বইপত্র পড়ি, আমারও মাঝেমধ্যে […]

মুহাম্মদ শামীম রেজার কিশোর উপন্যাস- গুপ্তবাড়ি রহস্য

সুমন কাকা চলে যাচ্ছেন। আমাদের পাত্তা দিচ্ছেন বলে মনে হচ্ছে না। আমরা তার পেছন পেছন যাচ্ছি। সুমন কাকা ফিরে দেখছেন না। আমাদের আফসোস হতে থাকল। আহা! তখন কেন সুমন কাকাকে পাত্তা দিচ্ছিলাম না। এখন যদি অন্য কাউকে…!’

ঝিনুকের ঝিলিক

সৈয়দ কামরুল হাসান দ্বিতীয় ভাবনা-দলের অনুসারী। আশুতোষ ভৌমিককে নিয়ে বলতে গিয়ে তিনি সব কবিদেরই সম্মান করে বলেছেন, ‘আমাদের বিশ্বাস করতে হবে, কবিদের হাতেই ফোটে স্বপ্নের কুসুম, তাদের হাতেই আছে অদৃশ্যের অলৌকিক চাবী

কাজী আলিম-উজ-জামানের তৃতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘হে প্রেমময়ী নিষ্ঠুর হেমন্ত’

কবি ও সাংবাদিক কাজী আলিম-উজ-জামান নিজেকে সাহিত্যের কর্মী ভাবতে পছন্দ করেন। প্রথম কবিতা ও গল্পের প্রকাশ স্কুল ম্যাগাজিনেই। সাংবাদিকতা পেশার সূত্রে দেশীয় ও বৈশ্বিক নানা বিষয়ে সংবাদ বিশ্লেষণ, কলাম লিখতে হয়। লিখে চলেছেন।

কবিতীর্থ-রেজাউদ্দিন স্টালিন সংখ্যা প্রকাশ

প্রতিবিম্ব প্রকাশ ও মনন সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ টায় কাঁটাবন মোড়, নিউ এলিফ্যান্ট রোডস্থ কবিতা ক্যাফে মিলনায়তনে কবিতীর্থ সাহিত্যপত্রের প্রকাশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিধান রিবেরুর নতুন বই ‘কানান্তর’

উৎসব চলাকালে বাংলাদেশের পত্রিকা, টেলিভিশন ও অনলাইনে বিধান রিবেরুর সাক্ষাৎকার ও প্রতিবেদন ছাপা হয়। জার্মানভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ডয়চেভেলেতেও বিধান রিবেরুর কান উৎসবে জুরি হওয়ার খবরটি গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করা হয়।

এই যাত্রার শুভলগ্নে

এখন থেকে পৃথিবীর যে কোনো প্রান্ত থেকে নিয়মিত অনলাইনে পড়া যাবে সম্পূর্ণ নতুন ও ভিন্নরকম বই বিষয়ক সাহিত্য পত্রিকা এবং বই । এতে রয়েছে, বই আলোচনা, গদ্য, আমার প্রিয় বই, নতুন বই, বিদেশী বই, সাক্ষাৎকার, সাহিত্য সংবাদ ও বইকথনসহ মোট আটটি বিভাগ।

‘লেখক-সঙ্গ: স্মৃতি আনন্দ’ অতীত বর্তমান ও ভবিষ্যতের মেলবন্ধন

সম্প্রতি পাঠ করলাম আনিসুল হকের স্মৃতিগদ্যের বই ‘লেখক-সঙ্গ: স্মৃতি আনন্দ’। স্মৃতি থেকে নেওয়া বিষয়গুলো তিনি লিখেছেন। লিখেছেন আনন্দঘন মুহূর্তের কথা। সাহিত্যের ছাব্বিশজন তারকার কথা বলতে যেয়ে তিনি প্রকৃতপক্ষে তাঁদের কথাই বলেছেন।

খ ম হারূনের বই ‘শঙ্কিত পদযাত্রা : টেলিভিশন জীবন, মুক্তিযুদ্ধ ও নানা প্রসঙ্গ’

বাংলাদেশ টেলিভিশনে যারা দীর্ঘ সময় কাজ করেছেন, বিশেষ করে সত্তরের দশকের শেষ ও আশির দশকের শুরু থেকে (এবং এর পরেও), তাঁদের পা ফেলতে হয়েছে মেপে মেপে। খ ম হারূনের আত্মকথনধর্মী এই বইটির শিরোনাম তিনি যদিও নিয়েছেন তাঁর প্রযোজিত ও পরিচালিত অনেক নন্দিত খণ্ড এবং সিরিয়াল নাটকের একটি থেকে, বাংলাদেশ টেলিভিশনে তাঁর পদযাত্রাও শঙ্কিতই ছিল।